Thursday, April 1, 2021

দুর্ঘটনা - Accident

 


কোনাে স্থান কেটে গেলে রক্তপাত বন্ধ করতে এবং চামড়া জোড়া লাগাতে Calendula Officinalis (শক্তি Q) ঔষধটি তুলায় লাগিয়ে আক্রান্ত স্থানে প্রয়ােগ করুন। কেটে যাওয়া স্থানে পুঁজ হওয়ার সম্ভাবনা থাকলে Hepar sulph (শক্তি ২০০) তিনবেলা করে খান যতদিন ক্ষত না শুকায়।


ধারালাে অস্ত্রের আঘাতে অনেকটুকু কেটে গেলে, গভীরভাবে কেটে গেলে, মসৃনভাবে কেটে গেলে staphisagria নামক ঔষধটি আল্লাহর নাম নিয়ে তিনবেলা করে কিছুদিন খেয়ে যান। যাদু আর কাকে বলে দেখতে পাবেন।


রাতের বেলা হঠাৎ মৃত্যু ভয় নিয়ে ঘুম ভেঙ্গে গেলে (এখনই মারা যাবাে এমন আশঙ্কা করলে, হার্টের অসুখ থাক বা না থাক) Arnica Montana ঘনঘন খেতে থাকুন। এটি হার্ট এটাক ঠেকানাের শ্রেষ্ট ঔষধ।


হঠাৎ কোন আনন্দ, বিস্ময় বা ভাবাবেগের কারণে কোনাে রােগ দেখা দিলে Coffea cruda একমাত্রা খাওয়ান।

হঠাৎ কোনাে কারণে হৃৎপিন্ডের ক্রিয়া বন্ধ হওয়ার উপক্রম হলে বা অত্যধিক বুক ধরফড়ানি শুরু হলে Camphora পাঁচ মিনিট পরপর খাওয়াতে থাকুন।


হঠাৎ কারাে হার্ট ফেলের উপক্রম হলে বা হার্ট ফেল করলে Crataegus oxyacantha বা Arnica Montana খাওয়াতে থাকুন।


কোনাে স্থান আগুনে পােড়ার সাথে সাথে Urtica ures অথবা Picric Acid রােজ চারবেলা করে খেতে থাকুন। পাশাপাশি পানির সাথে মিশিয়ে পােড়া স্থানে প্রয়ােগ করুন।


আগুনে পােড়ার পর অত্যধিক অস্থিরতা দেখা দিলে এবং ফোস্কা পড়লে Causticum রােজ চার বার করে খেতে থাকুন। পােড়া এবং ফোস্কার সাথে অনেক জ্বালা যন্ত্রণা থাকলে ক্যান্থারিস (Cantharis ) ঘন ঘন খাওয়াতে থাকুন।


অগ্নিদগ্ধ স্থানে পূজ উৎপন্ন হলে Picric Acid বাহ্য প্রয়ােগ করুন এবং তিন চার বার করে খেতে থাকুন।




হঠাৎ কোনাে কারণে দুর্ঘটনা-দীর্ঘ রােগ ভােগ) কারাে শরীর ঘেমে ঠান্ডা হয়ে মরে মরে অবস্থা হয়ে গেলে Carvo vegetabilis অথবা camphora ঘনঘন খাওয়াতে থাকুন।

শরীরের কোনাে স্থানে, কোমরে বা পেশীতে টান পড়লে Arnica Montana অথবা Bellis perennis একমাত্রা করে দুই ঘণ্টা পরপর খাওয়াতে থাকুন।


প্রচণ্ড গরমের সময় বা ঘামানো শরীরে ঠান্ডা কোন খাবার খেয়ে যে-কোন রােগই হউক না কেন, Bellis perennis আপনাকে সেই রােগ থেকে মুক্ত করবে।


শরীরের কোনাে স্থানে আঘাত লেগে চামড়ার নীচে কালশিরা পড়ে গেলে Arnica Montana অথবা   Ledum palustre তিনবেলা করে খেতে থাকুন।


শিশুরা সাবান, চুন প্রভৃতি খেয়ে মুখ পুড়ে ফেললে অথবা চোখে চুন , সােডা বা ঝাঝালাে জাতীয় কিছু পড়লে Causticum ঘণ্টায় ঘণ্টায় খাওয়াতে থাকুন।


কেহ বৈদ্যুতিক শক খেলে Phosphorus দশ মিনিট পরপর খেতে থাকুন।


গলায় মাছের কাঁটা ফুটলে silicea তিনবেলা করে দুই- তিন দিন খাওয়ান। প্রয়ােজনে কয়েকদিন পরে আবারাে একই নিয়েমে খাওয়ান। হাতে পায়ে কিছু বিধে সেখানে থেকে গেলে এবং পরবর্তীতে সেখানে চামড়ার নিচে শক্ত চাকা হলে উপরের নিয়মে silicea ঔষধটি খান।

সূচ, আলপিন, টেটা প্রভৃতি বিদ্ধ হলে ব্যথা কমাতে এবং ধনুষ্টঙ্কার ঠেকাতে Ledum palustre দুই/তিন ঘণ্টা পরপর চারমাত্রা খাওয়ান। পক্ষান্তরে ধনুষ্টঙ্কার দেখা দিলে বা আক্রান্ত স্থান থেকে তীব্র ব্যথা শরীরের বিভিন্ন দিকে যেতে থাকলে এবং শরীর ধনুকের মতাে বাঁকা হয়ে গেলে Hypericum perforatum ঘনঘন খাওয়াতে থাকুন।


চোখে ঘুষি বা এই জাতীয় কোনাে আঘাত লাগলে Ledum palustre তিন ঘণ্টা পরপর খেতে থাকুন।

0 Comments: